You Are Here: Home » featured » আল আকসা মসজিদের ইমাম গুলিবিদ্ধ ও জুমার নামাজে বাধা দেয়ার ঘটনায় শায়েখ চরমোনাই’র নিন্দা

আল আকসা মসজিদের ইমাম গুলিবিদ্ধ ও জুমার নামাজে বাধা দেয়ার ঘটনায় শায়েখ চরমোনাই’র নিন্দা

আল আকসা মসজিদের ইমাম গুলিবিদ্ধ ও জুমার নামাজে বাধা দেয়ার ঘটনায় শায়েখ চরমোনাই’র নিন্দা

শুক্রবার জুমার নামাজের জন্য মসজিদে প্রবেশের সময় ইসরাইলের সৈন্যরা মুসলিমদের উপর গুলি চালায়। এতে আল আকসা মসজিদের ইমাম-সহ আরো অনেকে গুলিবিদ্ধ হন। এছাড়া আল আকসা মসজিদে জুমার নামাজ বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল। এসকল ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম- শায়েখ চরমোনাই।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মুসলমানদের প্রথম কিবলা আল আকসা মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে বাধ দেয়ার কোনো অধিকার ইসরাইলের নেই। জারজ রাষ্ট্র ইসরাইল মার্কিনের মদদে ফিলিস্তিনের অসহায় নারী পুরুষ ও শিশুদেরকে যেভাবে হত্যা করছে হিংস্রতাকেও হার মানায়। আর আরবদেশগুলো নিরবে সহ্য করে যাচ্ছে। হিংস্র হায়েনার দল জায়নবাদী ইসরাইল সম্মিলিতভাবে বিশ্বের বুক থেকে মিটিয়ে দিতে হবে। আরবদেশগুলো হু্ংকার ছাড়লে ইসরাইল এক মুহুর্তের জন্য এধরনের কাজ করতে সাহস পেত না। কিন্তু আরবদেশগুলো কার ইশারায় চলছে তা বোধগম্য নয়। তিনি বিশ্বব্যাপী মার্কিন ও ইসরাইলী পণ্য বর্জনের জন্য মুসলিম বিশ্ব বিশেষ করে বাংলাদেশের মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানান। মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের মদদে ইসরাইল বিশ্বময় অশান্তির আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, যায়নবাদী ইসরাইল ধর্ম ও মানবতার শত্রু এবং আল্লাহর অভিশপ্ত জাতি। ইসরাইল যুগে যুগে নিন্দিত, আগ্রাসী বর্ণবাদী ও অভিশপ্ত সন্ত্রাসী জাতি। অবিলম্বে ফিলিস্তিনী জনগণের ওপর ইসরাঈলী আগ্রাসন বন্ধের দাবি জানান এবং আল আকসা মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে বাধা না দেয়ার আহবান জানান।

Comments

comments

About The Author

Number of Entries : 673

কপিরাইট © ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ২০১১ সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

Scroll to top