You Are Here: Home » featured » ঋণনির্ভর উচ্চাভিলাস বাজেট দ্বারা জাতি ও দেশের কল্যাণ সম্ভব হবে না -পীর সাহেব চরমোনাই

ঋণনির্ভর উচ্চাভিলাস বাজেট দ্বারা জাতি ও দেশের কল্যাণ সম্ভব হবে না -পীর সাহেব চরমোনাই

ঋণনির্ভর উচ্চাভিলাস বাজেট দ্বারা জাতি ও দেশের কল্যাণ সম্ভব হবে না -পীর সাহেব চরমোনাই

২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটকে দুর্নীতির বার্ষিক বরাদ্দপত্র বলে উল্লেখ করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, বিশাল অংকের বাজেট দিয়ে অর্থমন্ত্রী গৌরববোধ করলেও সাধারণ জনগণ এর কতভাগ সুফল পাবে তা নিয়ে জনমনে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। বাজেট প্রস্তাবনায় কথার ফুলঝুরি ও মিথ্যা আশ্বাসে ভরা লোক দেখানে মনতুষ্টির নিষ্ফল প্রয়াস চালানো হলেও একথা স্পষ্ট যে, বিগত সরকারগুলোর ধারাবাহিকতায় এবারের বাজেটেও সরকারদলীয় নেতাকর্মীদের লুটপাটের সুবিধার দিকে লক্ষ্য রেখে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়া জনগণের ট্যাক্সের টাকায় দেশ-বিদেশী লুটপাটকারীদের পকেট ভারী করার বাজেট। এবারের বাজেটে পরোক্ষ করের পরিমাণ ও মাত্রা বাড়িয়ে এবং বাজেট ঘাটতি মেটানোর জন্য ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাঁদে বিশাল ঋণের বোঝা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। বাজেটের বিশাল অংশ সরকারদলীয় এমপি ও নেতাকর্মীদের পকেটে যাবে বলেও আশংকা প্রকাশ করেন পীর সাহেব চরমোনাই। বাজেটে বরাবরের মত কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখায় দুর্নীতিকে আরো উৎসাহিত করা হবে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, এ বছরের বাজেটে জনগণের উপর করের বোঝা চাপানো হচ্ছে, যা জনগণকে চরমভাবে নিস্পেষন করার নামান্তর। জনগণের উপর করের বোঝা চাপানোর চক্রান্ত চলছে। অন্যদিকে দেশবান্ধপ বাজেটের পরিবর্তে দলবান্ধপ বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে।

সংবাদপত্রের উপর রেয়াত প্রত্যাহার ও নতুন করে কর আরোপ করাকে দেশের সংবাদপত্রের বিকাশের জন্য হুমকীস্বরূপ মন্তব্য করে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, সংবাদপত্র হলো জাতির বিবেক, একে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার বদলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি দেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে না। প্রস্তাবিত ঘাটতি বাজেটে উচ্চ সুদে বিপুল পরিমাণ দেশী-বিদেশী ঋণ নেয়ার প্রস্তাব থাকায় এই সুদের দায়ভার সাধারণ জনগণকেই বইতে হবে বলেও তিনি মনে করেন। পীর সাহেব চরমোনাই সরকারের অর্থমন্ত্রীসহ সকল সংসদ সদস্যকে দেশ ও জনগণের স্বার্থের কথা চিন্তা করে জনবান্ধব বাজেট পাশ করতে আহবান জানান।

Comments

comments

About The Author

Number of Entries : 673

কপিরাইট © ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ২০১১ সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

Scroll to top