You Are Here: Home » featured » জনগণের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে সরকার ব্যর্থ হয়েছে -পীর সাহেব চরমোনাই

জনগণের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে সরকার ব্যর্থ হয়েছে -পীর সাহেব চরমোনাই

জনগণের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে সরকার ব্যর্থ হয়েছে -পীর সাহেব চরমোনাই

দেশে ভয়াবহ গ্যাস সঙ্কট দেখা দেয়ায় জনগণের দুঃখ কষ্টের শেষ নেই বলে মন্তব্য করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেছেন, গ্যাসের তীব্র সংকটের ফলে জনগণের জীবন চরম দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। সঙ্কট নিরসন করে জনগণের কষ্ট লাঘব করা সরকারের দায়িত্ব ও কর্তব্য। কিন্তু জনগণের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে সরকার ব্যর্থ হয়েছে।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মজলিসে আমেলার এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মজলিসে আমেলার সভায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, নাগরিক জীবনে চরম নিরাপত্তাহীনতা প্রকাশ পাচ্ছে। ফলে দেশে খুন খারাবী অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। মানুষের জীবনের কোনো নিরাপত্তা নেই। এখন নুনের চেয়ে খুন সস্তা। এমতাবস্থায় একটি দেশ চলতে পারে না।

তিনি বলেন, ধর্মদ্রোহীদের শাস্তির আইন না থাকায় ইসলাম নিয়ে কটুক্তি অব্যাহতভাবে চলছে। এখন পবিত্র আজান, ধর্মীয় ওয়াজ মাহফিল ও তাবলীগের কারণে শব্দ দূষণ হয়, এগুলোর অনুমতি বাতিল করতে হবে এধরণের কাণ্ডজ্ঞানহীন বক্তব্য দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।

তিনি বলেন, কওমী মাদরাসাগুলো নৈরাজ্যমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, অস্ত্রমুক্ত, মাদকমুক্ত, আদর্শ নাগরিক এবং আলোকিত সোনার মানুষ গড়ার কারখানা। আল্লাহভীরু মানুষ তৈরির নজিরবিহীন এক বিশাল প্রতিষ্ঠান এই কওমী মাদরাসাগুলোর মাধ্যমে আল্লাহ মানুষকে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে নিয়ে আসেন, হেদায়াত দিয়ে মানুষকে জান্নাতের পথে আনেন। কাজেই মাদরাসা নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে।

মজলিসে আমেলার সভায় বিগত পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক আলোকপাত করা হয় এবং আসন্ন ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণের নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় কওমী মাদরাসা নিয়ে অব্যাহত চক্রান্তের বিরুদ্ধে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। কওমী মাদরাসার বিরুদ্ধে সিন্ডিকেট ভিত্তিক অপপ্রচার বন্ধের দাবি জানানো হয়।

সংগঠনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান ও মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, নগর সভাপতি অধ্যাপক হাফেজ মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মাওলানা আবদুল কাদের, আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম আতিকুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা মোহাম্মদ নেছার উদ্দিন, আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, মুফতী হেমায়েতুল্লাহ, শায়খুল হাদীস মাওলানা মকবুল হোসাইন, প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, এ্যাড. শেখ লুৎফুর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার শরীফুল ইসলাম, আলহাজ্ব আবদুর রহমান, বরকতউল্লাহ লতিফ,ক্ষীল মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, মুক্তিয়োদ্ধা আবদুল ওয়াদুদ, সৈয়দ আলী মোস্তফা, মুফতী কেফায়েতুল্লাহ কাশফী, আলহাজ্ব জান্নাতুল ইসলাম, এ্যাড. একেএম এরফান খান, কে. জি. মাওলানা প্রমুখ।

Comments

comments

About The Author

Number of Entries : 673

কপিরাইট © ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ২০১১ সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

Scroll to top