You Are Here: Home » featured » দেশের জাতীয় সঙ্কট নিরসনে শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে আসা প্রশংসনীয় -মহাসচিব, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

দেশের জাতীয় সঙ্কট নিরসনে শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে আসা প্রশংসনীয় -মহাসচিব, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

দেশের জাতীয় সঙ্কট নিরসনে শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে আসা প্রশংসনীয় -মহাসচিব, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

দেশের জাতীয় সঙ্কট নিরসনে দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে আসাকে প্রশংসনীয় উদ্যোগ বলে অভিহিত করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ। তিনি বলেন, দেশ এক ভয়াবহ অবস্থার দিকে ধাবিত হচ্ছে। জাতীয় ও রাজনৈতিক সমস্যা ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। এমতাবস্থায় দুই নেত্রীকে সমঝোতায় আসার জন্য জাতির এই দুর্দিনে দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে আসাকে শুভ লক্ষণ মনে করেন। তিনি বলেন, রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন যেভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে, দূর্নীতি সন্ত্রাস যেভাবে তৃণমূল পর্যায়ে বিস্তার করছে, রাজনৈতিক নৈরাজ্য ও প্রতিহিংসার আগুন প্রতিনিয়ত যেভাবে দাউ দাউ করে জ্বলছে তা নির্মূল করতে ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো দেশপ্রেম নিয়ে এগিয়ে আসায় দেশবাসীর মনে আশার আলো জাগ্রত হয়েছে। আমাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা সমাধান করতে ব্যর্থ হওয়ায় বিদেশি সম্রাজ্যবাদী ও আদিপত্যবাদী অপশক্তিসমূহ অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে নাক গলাতে সাহস পাচ্ছে। জাতি যখন দেশের পারিপার্শ্বিক ও নৈরাজ্য নিয়ে শঙ্কিত, দেশ-বিদেশী কূটনৈতিক মিশন যখন দুই নেত্রীকে সমঝোতায় আনতে ব্যর্থ তখন দেশের ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো শান্তিপূর্ণ কর্মসুচী নিয়ে এগিয়ে আসছে তা অত্যন্ত ভাল দৃস্টান্ত। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। পোশাকশিল্প ধ্বংসের কিনারায় তা রক্ষা করতে না পারলে দেশ অর্থনৈতিক মহাসঙ্কটে নিপতিত হবে।
আজ বিকেলে পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নির্বাহী পরিষদের এক জরুরী সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, আমীরের রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, প্রিন্সিপাল মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন প্রমুখ।

এদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরীর থানা দায়িত্বশীল নগর সভাপতি অধ্যাপক হাফেজ মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে আরো বক্তব্য রাখেন নগর সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন ও মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মোঃ আবু সাঈদ সিদ্দিকী, জয়েন্ট সেক্রেটারী আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা এইচএম সাইফুল ইসলাম, আলহাজ্ব শফিকুল আমীন খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম, নুরুজ্জামান সরকার, মাওলানা আবদুর রাজ্জাক, মাওলানা নজরুল ইসলাম, মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মাওলানা বাছির উদ্দিন মাহমুদ, আলহাজ্ব আবদুর রহমান, নূরুল ইসলাম নাঈম, আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান, ডা. শহিদুল ইসলাম, হাফেজ ওবায়দুল্লাহ প্রমুখ। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশ ক্রমেই সংঘাতের দিকে ধাবিত হচ্ছে। আগামীতে দেশে কি ঘটবে তা নিয়ে শঙ্কিত সচেতন দেশবাসী। সরকার ও বিরোধী দলের আপোসহীন মনোভাবের ফলে দেশ এই ভয়াবহ অবস্থার দিকে যাচ্ছে। তিনি এ থেকে পরিত্রাণ পেতে এবং দেশবাসীকে রক্ষা করতে হলে সরকার ও বিরোধী দলকে ছাড় দেয়ার মানসিকতা নিয়ে সমঝোতায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এদিকে আগামী ১০ ডিসেম্বর ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন ঢাকা মহানগরী মহান বিজয় দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম, পীর সাহেব চরমোনাই। আলোচনা সফলের লক্ষ্যে বিকেলে সংগঠনের ঢাকা মহানগর শাখার এক প্রস্তুতি সভা আলহাজ্ব শফিকুল আমীন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা ফখরুল ইসলাম, হাফেজ নাসির উদ্দিন, হাফেজ শাহাদাত হোসাইন।

Comments

comments

About The Author

Leave a Comment

কপিরাইট © ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ২০১১ সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

Scroll to top