৫৫/বি (৩য় তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৯৫৬৭১৩০, ফ্যাক্স : ০২-৭১৬১০৮০

যাতায়াতের সুব্যবস্থা না করে শিল্প কল-কারখানা খুলে দিয়ে শ্রমিকদের ভোগান্তিতে ফেলা হয়েছে

  • হোম
  • বিবৃতি
  • যাতায়াতের সুব্যবস্থা না করে শিল্প কল-কারখানা খুলে দিয়ে শ্রমিকদের ভোগান্তিতে ফেলা হয়েছে

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই যাতায়াতের সুব্যবস্থা না করে শিল্প কল-কারখানা খুলে দিয়ে শ্রমিকদের সাথে হয়রানি করার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, লকডাউনের মধ্যে গণপরিবহন বন্ধ রেখে গার্মেন্টস, শিল্প কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত শ্রমজীবী মানুষের সাথে প্রতারণার শামিল।

তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রীদের পারস্পরিক কোনো সমন্বয় নেই। এ কারণে একেক মন্ত্রী একেক ধরণের বক্তব্য বিবৃতি দিয়ে জাতিকে ভোগান্তিতে ফেলতে দ্বিধা করে না। সব ক্ষেত্রেই এক হযবরল অবস্থা বিরাজ করছে।
তিনি বলেন, শ্রমিকদের ভ্যাকসিন নিশ্চিত না করে, গণপরিবহন না খুলে এভাবে শিল্প কারখানা খুলে দেয়া দেশের শ্রমজীবী মানুষের সাথে তামাশা ছাড়া আর কিছুই নয়। এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। তারা ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসেছে। তাই তারা জনগণের জীবন, মৃত্যু, ভোগান্তি কোন কিছুর তোয়াক্কা করে না। গরীব, অসহায়, মেহনতি মানুষদের তারা মানুষই মনে করে না। অবৈধভাবে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখাই তাদের একমাত্র লক্ষ্য।

আজ রবিবার এক বিবৃতিতে মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, শিল্প কারখানা খুলে দেয়ার ঘোষণার পর সারাদেশ থেকে অর্ধ কোটিরও বেশি শ্রমিক, কর্মজীবী শত শত মাইল পথ পায়ে হেঁটে, ছোট যানবাহনে গাদাগাদি করে দশ থেকে পনের গুণ ভাড়া দিয়ে ঢাকার পথে রওনা দিয়েছে। ফেরিঘাটগুলো জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে। ফেরিতে মানুষের ভীড়ে তিল ধারণের জায়গা নেই। এতে একদিকে এই অসহায় শ্রমজীবী মানুষদের সীমাহীন ভোগান্তি সইতে হচ্ছে, অন্যদিকে ব্যাপকভাবে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। তিনি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে কর্মক্ষেত্রে ফেরা সকল শ্রমিকের ভ্যাকসিন নিশ্চিত করার দাবি জানান।

শেয়ার করুন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook

অন্যান্য বিবৃতি

Scroll to Top

সদস্য ফরম

নিচের ফরমটি পূরণ করে প্রাথমিক সদস্য হোন

small_c_popup.png

প্রশ্ন করার জন্য নিচের ফরমটি পূরণ করে পাঠিয়ে দিন